শিরোনাম

আবারও ঢাকা-নিউইয়র্ক ফ্লাইট চালু হচ্ছে

ঊষার বাণী : ১৯ নভেম্বর ২০২০
। নিউজ ডেস্ক ।

ঢাকা-নিউইয়র্ক রুটে প্রায় ১৪ বছর পর আবারও বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট চালুর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জানান, চুক্তি সইয়ের পর আরও কিছু প্রক্রিয়াও এগিয়েছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ২০২১ সালের শুরুর দিকেই যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশ্যে বিমান চলাচল শুরু হবে।

নিরাপত্তার অজুহাতে ২০০৬ সালে বাংলাদেশকে ক্যাটাগরি-২ এ নামায় মার্কিন নিয়ন্ত্রক সংস্থা এফএএ। পরে বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সরাসরি উড়োজাহাজ চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ১৯৯৩ সালে প্রথম নিউইয়র্কের সঙ্গে ফ্লাইট চলাচল শুরু করে বাংলাদেশ বিমান।

তবে এফএএ এর শর্ত পূরণ করে ৩০ সেপ্টেম্বর আবারও উড়োজাহাজ চলাচলে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে দু’দেশ। মুক্ত আকাশ নীতির ভিত্তিতে চুক্তি অনুযায়ী উভয় দেশ যে কোন সংখ্যক উড়োজাহাজ সংস্থাকে দু’দেশের মধ্যে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমোদন দিতে পারবে।

বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জানালেন, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে একটি অডিট মিটিংয়ের বিষয়ে আলোচনা চলছে। করোনার কারণে বৈঠকটি হয়নি।

বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান বলেন, সহসাই একটা অনলাইন মিটিং হবে এফএএ’র সঙ্গে। এই মিটিংটা হয়ে গেলে তখন তাদের একটা টিম আমাদের দেশে এসে সার্টিফিকেশনের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দিবে। এটা যখন হয়ে যাবে তখন দুই দেশের মধ্যে যাতায়াতের একটা ব্যবস্থা হবে। আমাদের যে টার্গেট ছিল যে ২০২০ সালেই চালু করবো, হয়তো এটা ২০২১ সালের দিকে চালু করতে সক্ষম হবো।

এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান আরও বলেন, ‘বিমানের আলাদা পার্মিশনের একটা ব্যাপার আছে। বিমানও কাজ করছে এবং আমরাও এফএএ’র সঙ্গে কাজটা করছি।’

বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মোকাব্বির হোসেন বলেন, ‘সিভিল এভিয়েশনের সঙ্গে খুবই ক্লোজলি কাজ করছি। এটা যখনই আমেরিকা এয়ারপোর্ট কনফার্ম করবে সাথে সাথে আমাদের কার্যক্রম শুরু করবো।’

এক মাসের মধ্যেই সব কিছু সুরাহা করতে চায় বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ।

বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান বলেন, ‘মাসখানেকের মধ্যেই এফএএ’র ব্যাপারে একটা মিটিং করা সম্ভব হবে।’

Ad Widget

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *