শিরোনাম

শীতে রুক্ষতা থেকে হাত-পা বাঁচান

ঊষার বাণী : ২৬ নভেম্বর ২০২০
। নিউজ ডেস্ক ।

শীতকাল মানেই রুক্ষতা।শীতকালে ত্বকের সমস্যা বলতে প্রথমেই আসে এই রুক্ষতা। শরীরের অন্যান্য অংশের তুলনায় হাত ও পা থাকে বেশ অবহেলায়। তাই মুখ ত্বকের মতো প্রয়োজন হাত-পায়েরও সঠিক পরিচর্যা।

*শীতে হাত পায়ের পরিচর্যা:
শীতের ক্ষেত্রে পেট্রোলিয়াম জেলি বা গ্লিসারিন সবচেয়ে বেশি কার্যকর। অন্যথায় ব্যবহার করতে পারেন ময়েশ্চারযুক্ত লোশন।

ঠাণ্ডা যত বেশিই হোক, রোজ নিয়ম মেনে গোসলের আগে অর্গানিক অয়েল বা এসেনশিয়াল অয়েল ব্যবহার করতে হবে।
একইভাবে গোসল শেষে ব্যবহার করতে পারেন পেট্রোলিয়াম জেলি বা ময়েশ্চারাইজার লোশন। সপ্তাহে অন্তত একদিন একটু সময় নিয়ে গোসল করুন।

মাইক্রোফাইবারযুক্ত লুফা দিয়ে হাত ও পায়ের অংশগুলো ঘষুন। এতে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পাবে এবং ত্বক পুষ্টি পাবে। ফাটা গোড়ালির সমস্যা থাকলে গোসলের সময় পিউমিস স্টোনের সাহায্যে আলতো করে ঘষে নিন। ত্বক ভিজে থাকায় খুব সহজেই ত্বকের মৃত কোষ উঠে আসবে।

একইভাবে সপ্তাহে এক দিন ফ্রুট স্ক্রাবার বা মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। দুধের সর, অ্যাভোকাডো, অলিভ অয়েল, পাকা কলা ইত্যাদি ফাটা গোড়ালির সমস্যা কমাতে সাহায্য করবে।

মাসে একবার বিউটি স্যালনে গিয়ে বডি স্পা করাতে পারলে আরও ভালো। দেখবেন, এই শীতের রুক্ষতায় হাত-পা তো ফাটবেই না বরং আপনার ত্বক হয়ে উঠবে আরও কোমল এবং মোলায়েম।

পার্লার কিংবা বিউটি স্যালনে গিয়ে পেডিকিউর-মেনিকিউর করাতে পারেন। সময়ের অভাবে পার্লারে যেনে না চাইলে ঘরে বসেই পেডিকিউর-মেনিকিউর করিয়ে নিতে পারেন। পেডিকিউর করতে কুসুম গরম পানিতে সামান্য শ্যাম্পু ও লবণ মিশিয়ে নিন। এই পানিতে ১০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন। তারপর ব্রাশ বা পিউমিস স্টোন দিয়ে গোড়ালি ও পায়ের পাতা ভালো করে ঘষে নিন।
এরপর পা পরিষ্কার করে ধুয়ে তোয়ালে দিয়ে শুকনো করে মুছে নিন। সবশেষে ফুট ক্রিম লাগিয়ে নিন। এই তো গেল পায়ের যত্নের ঘরোয়া টিপস।

এবার আসি হাতের যত্নে মেনিকিউর-এর কথায়। কুসুম গরম পানিতে শ্যাম্পু, কয়েক ফোঁটা লেবুর রস ও লবণ মিশিয়ে সেই পানিতে হাত ডুবিয়ে রাখুন অন্তত ১০ মিনিট। তারপর ব্রাশ বা মাইক্রোফাইবারযুক্ত লুফা দিয়ে হাতের ত্বক ভালো করে পরিষ্কার করে নিন। পরিষ্কার শেষে ভালো করে ধুয়ে তোয়ালে দিয়ে শুকনো করে মুছে বডি লোশন ব্যবহার করুন।

এ ছাড়া প্রাত্যহিক যত্ন হিসেবে ঘুমোতে যাওয়ার আগে হাত ও পা পরিষ্কার করে বাদাম তেল বা জলপাই তেল লাগিয়ে নিন। ফাটা গোড়ালির সমস্যা থাকলে পায়ে পুরু করে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে পুরু করে জেলি লাগিয়ে সুতির মোজা পরে শুতে যান। পা যতটা সম্ভব শুকনো রাখার চেষ্টা করুন। ঘরে ফ্লিপফ্লপ পরার অভ্যেস করুন। সকালে উঠে কুসুম গরম পানি দিয়ে হাত এবং পা ধুয়ে নিন। নিয়মিত তেল বা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারে ত্বকের রুক্ষতা কমে আসবে।

Ad Widget

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *