শিরোনাম

শ্বাসরুদ্ধকর টাইব্রেকারে ইউরোপা জিতল ভিয়ারিয়াল

ঊষার বাণী : ২৭ মে ২০২১

। স্পোর্টস ডেস্ক ।

শেষ ১৫ বছরে কোনো ইউরোপিয়ান ফাইনালে স্প্যানিশ দলের বিপক্ষে জয় নেই কোনো ইংলিশ দলের। সে ইতিহাস বদলে দেওয়ার লক্ষ্যটা পূরণ হলো না ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের। ইউরোপা লিগের ফাইনালে নির্ধারিত সময় ১-১ ড্রয়ের পর সাডেন ডেথে ১১-১০ ব্যবধানে হারল দলটি।

পোল্যান্ডের গেদ্যানস্কে ম্যাচের শুরু থেকে অবশ্য আক্রমণের পাল্লা ভারী ছিল ইউনাইটেডের দিকেই। কিন্তু খেলার ধারার বিপরীতে ২৯ মিনিটে গোল পেয়ে যায় ভিয়ারিয়াল।

দানি পারেহোর দারুণ এক ফ্রি-কিক থেকে হেড করে স্প্যানিশ দলটিকে এগিয়ে নেন জেরার্ড মোরেনো। সব ধরণের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এটি ছিল মোরেনোর ৩০তম গোল।

এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করলেও দ্বিতীয়ার্ধে বেশিক্ষণ লিড ধরে রাখতে পারেনি ভিয়ারিয়াল। ৫৫ মিনিটে তাদের বক্সে জটলার মধ্য থেকে গোলের সামনে বল পেয়ে যান এডিনসন কাভানি। এত কাছে থেকে ইউনাইটেডকে সমতায় ফেরাতে ভুল করেননি এ উরুগুইয়ান।

তবে ম্যাচের বাকি সময়ে আর গোল হয়নি। ফলে ১-১ সমতা আর ভাঙেনি নির্ধারিত সময়ে।

যোগ করা অতিরিক্ত সময়ে গোল করার চেয়ে গোল হজম না করাতেই যেন সব মনোযোগ ঢেলে দিয়েছিল ইউনাইটেড। তবে এর মাঝেও দুয়েকটা আক্রমণ দেখা গেছে, যার প্রায় সবকটাই ছিল ভিয়ারিয়ালের। তার একটাতেই ওঠে পেনাল্টির জোর আবেদন। ১১৪ মিনিটে মোরেনোর শট ব্লক করেন ফ্রেড, তবে তাতে হাতের ছোঁয়া ছিল। সে সময়ে তার হাত ছিল শরীরের বাইরে, কিন্তু ভিএআর দেখেও তাতে সাড়া দেননি রেফারি।

এর ফলে ২০১৩-১৪ মৌসুমের পর ফাইনাল গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। সব রোমাঞ্চ যেন তোলা ছিল তার জন্যেই। নির্ধারিত পাঁচ পেনাল্টি থেকে কেউই মিস করলেন না। খেলা গড়াল সাডেন ডেথে। সেখানেও পরের পাঁচ পেনাল্টি আলাদা করতে পারল না দুই দলকে।

পেনাল্টি শুটআউট নাকি গোলরক্ষকদেরও ভাগ্য পরীক্ষা নেয়। ১১তম শটে ভিয়ারিয়াল গোলরক্ষক জেরোনিমো রুলি এলেন শট নিতে, গোল পেলেন। এরপর এলেন ইউনাইটেড প্রহরী ডেভিড ডি হেয়া। তিনি আর পারলেন না, তার দূর্বল পেনাল্টিটা ঠেকাতে কোনো সমস্যাই হয়নি আরেক গোলরক্ষক রুলির। পেনাল্টি শুটআউটে ব্যবধান গড়ে দিলেন এক গোলরক্ষক, তবে তা ভিন্নভাবে, গোল করতে না পেরে।

ফলে ৯৮ বছরের ইতিহাসে প্রথম ইউরোপীয় শিরোপার স্বাদ পায় ভিয়ারিয়াল। উনাই এমেরি পান ক্যারিয়ারে চতুর্থ ইউরোপার দেখা।

Ad Widget

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *